Thu. Jun 20th, 2019

pflix.net

Entertainment Ekhane

মঙ্গলবার প্রথম রোজা | পবিত্র রমজান মাসের চাঁদ দেখা গেছে |Ramadan begins Tuesday

1 min read

Ramadan begins Tuesday|

The Holy Ramadan, the lunar month of self-purification through fasting and abstinence, begins in the country on Tuesday as the new crescent moon was sighted in Bangladesh sky on Monday, reports UNB.

Lailatul Qadr, the night of divine blessing and benediction, will be observed on the night of 1 June.

The National Moon Sighting Committee took the decision at a meeting held at Islamic Foundation’s Baitul Mukarram office with state minister for religious affairs Sheikh Md Abdullah in the chair.Muslims are meant to fast from dawn to dusk during the lunar month, a time of restraint and austerity.

 

During the holy month, all government, semi-government, autonomous and semi-autonomous institutions will follow new office timing as announced by the government.

দেশের আকাশে হিজরি ১৪৪০ সনের পবিত্র রমজান মাসের চাঁদ দেখা গেছে। মঙ্গলবার প্রথম রোজা শুরু হচ্ছে। ইসলামিক ফাউন্ডেশন সূত্রতে বিষয়টি নিশ্চিত ।

রাজধানীর বায়তুল মোকাররমে ইসলামিক ফাউন্ডেশনের সভাকক্ষে জাতীয় চাঁদ দেখা কমিটির সভায় চাঁদ দেখার বিষয়টি জানানো হয়। রমজানের চাঁদ দেখা যাওয়ায় আজ এশার নামাজের পর মসজিদে মসজিদে তারাবিহর নামাজ পড়বেন মুসল্লিরা। আজ সোমবার দিবাগত শেষরাতে ধর্মপ্রাণ মুসল্লিরা সাহরি করবেন।

ইউএনবির খবরে জানানো হয়, ইসলামিক ফাউন্ডেশনের সভাকক্ষে জাতীয় চাঁদ দেখা কমিটির সভায় সভাপতিত্ব করেন ধর্মপ্রতিমন্ত্রী শেখ মো. আব্দুল্লাহ।

পবিত্র কোরআন অবতীর্ণ হওয়ার এ মাস রমজান। এই মাসে সংযম সাধনা ও ইবাদতের মাধ্যমে আল্লাহর নৈকট্য লাভের চেষ্টা করেন ধর্মপ্রাণ মুসলমানরা। রোজদাররা শেষ রাতে সাহরি খেয়ে পরদিন সূর্যাস্তের পর ইফতার পর্যন্ত পানাহার না করে সংযম পালন করবেন। আগামী ১ জুন রাতে লাইলাতুল কদর পালিত হবে।

এদিকে সৌদি আরবের সঙ্গে মিল রেখে চাঁদপুরের ৪০ গ্রামে সোমবার থেকে পবিত্র রমজানের রোজা রাখা শুরু হয়েছে। রোজা শুরু করা বেশির ভাগ গ্রামই হাজীগঞ্জ উপজেলায় অবস্থিত। সেই সঙ্গে ফরিদগঞ্জ, মতলব উত্তর, কচুয়া ও শাহরাস্তি উপজেলার কিছু গ্রামে এ প্রথা অনুসরণ করা হচ্ছে।

সোমবার থেকে সৌদি আরবসহ মধ্যপ্রাচ্যের দেশগুলোতে রোজা রাখা শুরু করেছেন মুসলিমরা।

আজ পহেলা রমজান। আত্মশুদ্ধি, আত্মউন্নয়ন আর তাকওয়া অর্জনের রমজান মাসের প্রথম দিন। অফুরন্ত রহমত,বরকত, মাগফিরাত, নাজাত ও ফজিলতপূর্ণ এই মাসেই নাযিল হয়েছে আল কুরআন। ফলে আল কুরআনের মর্যাদার বদৌলতে এই মাসের মর্যাদাও অন্যান্য মাসের তুলনায় অনেক বেশি। রমজান শুরু উপলক্ষে সব ক্ষেত্রেই ইসলামী ভাবধারায় শুরু হয়েছে আমাদের জীবনাচার। পরিবর্তন এসেছে দৈনিক কাজের রুটিনেও।

ইতোমধ্যেই রমজান মাসের মর্যাদা রক্ষায় বদলে গেছে পুরো দেশের সামগ্রিক দৃশ্যপট। তবে সরকারের নজরদারি আর ইসলামী আইন-কানুনের যথাযথ প্রয়োগ থাকলে রমজান মাসে এদেশের পরিবেশ আরো উন্নত হতো বলেই রোজাদারগণ মনে করেন।

এদিকে রমজানে বিক্রি বেড়েছে ইসলামী বইয়ের। বিশেষ করে রোজা, নামায ও মাসয়ালা মাসায়েল বই বিক্রি হচ্ছে বেশি। বাইতুল মোকাররম, কাঁটাবন মসজিদ, বাংলা বাজারসহ অন্যান্য এলাকার বইয়ের দোকানেও ভিড় বেড়েছে। টুপি জায়নামাযের বিক্রিও বেড়েছে সমানতালে। বিভিন্ন মসজিদে রমযান উপলক্ষে পবিত্র কুরআন ক্লাসেরও আয়োজন চলছে। অনেক মসজিদে শুরু হয়েছে শুদ্ধ কোরআন পাঠ।

বিভিন্ন সামাজিক ও রাজনৈতিক সংগঠনের পক্ষ থেকে রমযানের পবিত্রতা রক্ষার আদেবন জানিয়ে প্রচারপত্রও বিলি করা হচ্ছে। দেশের ইসলামী সংস্কৃতি মোতাবেক নিকট আত্মীয়দের বাসায় ইফতারির নানা আইটেমও পাঠানো হচ্ছে। চলছে রমযানের শুভেচ্ছা বিনিময়।

ইতোমধ্যে সরকারি বেসরকারি ও স্বায়ত্বশাসিত প্রতিষ্ঠানেরও কাজের দৈনিক রুটিনে পরিবর্তন আনা হয়েছে। পরিবর্তন এসেছে সাধারণ লোকজনের প্রাত্যহিক কাজকর্মের ররুটিনেও।

রমজান মাসকে যারা আত্মউন্নয়ন আর আত্মগঠনের মোক্ষম সময় হিসেবে বেছে নিয়েছেন তারাও নিজেদের দৈনন্দিন কাজের রুটিনে আসছেন আমূল পরিবর্তন। নিয়মিত ৫ ওয়াক্ত নামাযের সময়সূচি ছাড়াও সেহরী, ইফতার ও তারাবী নামাযের সময়কে অগ্রাধিকার দিয়ে নিজেদের দৈনিক কাজের রুটিনে আনতে হচ্ছে পরিবর্তন। দিনের কাজের ফাঁকে বিশ্রামের সুযোগ নিয়ে রাতের ইবাদতের সময়ও বের করে নিচ্ছেন অনেক রোযাদার।

রমযান মাসে পরিবারের পুরুষ সদস্যরা বাইরের কাজের রুটিনের ক্ষেত্রে যেমন একটি পরিবর্তন আনছেন, ঠিক তেমনি পরিবারের নারী সদস্যরাও তাদের দৈনিক কাজের একটি আলাদা রুটিন সাজিয়ে নিচ্ছেন। পরিবারের সব সদস্যদের জন্য পছন্দসই সেহরী রান্না করা, আলাদা একটু বেশি সময় নিয়ে বাহারী ইফতার তৈরিতেও সময় পার করবেন তারা।

এছাড়া নিয়মিত নামায বন্দেগী ছাড়া তারাবি ও অন্যান্য ইবাদতেও মশগুল থাকবেন পরিবারের মা ও বোনেরা। অনেকে আবার রমযানকে ইবাদতের মোক্ষম সময় ধরে নিয়ে কুরআন খতমেরও প্রস্তুতি নিচ্ছেন। অনেক মা বাবা পরিবারের তাদের ছোট সন্তানদের জন্য আয়োজন করছেন কুরআন বা আরবি শিক্ষার আসর।

সরেজমিনে দেখা গেছে গতকাল সোমবার সকাল থেকেই সরগরম ছিল রাজধানীর বিভিন্ন ইফতারি তৈরির আইটেমের বাজার। বিশেষ করে চিনি, ছোলা, ডাল, পেয়াজ, বেগুন, সয়াবিন, বেসন বিক্রি হয়েছে সবচে বেশি। অনেকে কিনেছেন নানা আইটেমের ফল। হোটেলে রেস্তোরাঁয় ইফতারি আইটেম বিক্রির জন্য পৃথক ও সুসজ্জিত ডেকোরেশন করা হয়েছে।

রোজায় সরকারি অফিসের সময়সূচি পরিবর্তন করে সকাল ৯টা থেকে সাড়ে তিনটা পর্যন্ত পুনঃনির্ধারণ করা হয়েছে। ব্যাংক বীমার গ্রাহকদের জন্য লেনদেনর সময়সূচি সকাল সাড়ে নয়টা থেকে দুপুর আড়াইটা পর্যন্ত নির্ধারণ করা হয়েছে। শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের সময়সূচিতেও আনা হয়েছে পরিবর্তন।

 

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Like Us On Facebook

Facebook Pagelike Widget
Copyright © All rights reserved. | Newsphere by AF themes.
Shares